স্পেশাল এয়ার সার্ভিস

স্পেশাল এয়ার সার্ভিস
180px
স্পেশাল এয়ার সার্ভিস ইনসিগনিয়া
সক্রিয়১৯৪১–১৯৪৫; ১৯৪৭–বর্তমান[১][২][৩]
দেশ United Kingdom
শাখা ব্রিটিশ সেনাবাহিনী
ধরনবিশেষ বাহিনী
ভূমিকাবিশেষ অভিযান
কাউন্টার টেরোরিজম
Reconnaissance
আকারThree regiments[nb ১]
অংশীদার22 SAS: United Kingdom Special Forces (UKSF)
21 & 23 SAS: 1st ISR Brigade
গ্যারিসন/সদরদপ্তরRHQ: Stirling Lines, Hereford, United Kingdom
21 SAS: Regent's Park Barracks, London, United Kingdom[৪]
22 SAS: Stirling Lines, Hereford, United Kingdom[৪]
23 SAS: Birmingham, West Midlands, United Kingdom[৪]
ডাকনাম"The Regiment"[৭]
নীতিবাক্যWho Dares Wins[৮]
ColoursPompadour blue[৮]     
মার্চQuick: Marche des Parachutistes Belges[৮]
Slow: Lili Marlene[৮]
যুদ্ধসমূহSAS operations
কমান্ডার
Colonel-CommandantField Marshal The Lord Guthrie[৯]

স্পেশাল এয়ার সর্ভিস (এসএএস) হচ্ছে ব্রিটিশ সেনাবাহিনীর একটি বিশেষ বাহিনী ইউনিট। এসএএস ১৯৪১ সালে একটি রেজিমেন্ট হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হয় এবং পরবর্তীতে ১৯৫০ সালে এটিকে একটি সৈন্যদল হিসাবে পুনর্গঠন করা হয়।[৫] এই ইউনিট গোপন নজরদারী, সন্ত্রাসবিরোধী, সরাসরি আক্রমণ এবং জিম্মি উদ্ধার সহ অনেকগুলো দায়িত্ব পালন করে। এসএএস এর বেশির ভাগ তথ্য ও কর্মপদ্ধতি অত্যন্ত গোপনীয় এবং স্পর্শকাতর বিধায় ব্রিটিশ সরকার বা ব্রিটিশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় দ্বারা মন্তব্য করা হয় না।[১০][১১][১২]

বর্তমানে যুক্তরাজ্যের স্পেশাল ফোর্সের কার্যনির্বাহী কমান্ডের অধীনে ২২নম্বর স্পেশাল এয়ার সার্ভিস রেজিমেন্ট এর সাথে ২১নম্বর (আর্টিস্ট) স্পেশাল এয়ার সার্ভিস রেজিমেন্ট (রিজার্ভ) এবং ২৩ তম এয়ার সার্ভিস রেজিমেন্ট (রিজার্ভ) গঠিত যা ১ম ইন্টেলিজেন্স, গোয়েন্দা নজরদারি ও রক্ষণ ব্রিগেড দ্বারা সংরক্ষিত।

২য় বিশ্বযুদ্ধকালীন ১৯৪১ এ স্পেশাল এয়ার সার্ভিসের যাত্রা শুরু হয়। ১৯৪৭ সালে টেরিটোরিয়াল আর্মির অংশ হিসাবে এটি সংস্কার করা হয় ২১ তম স্পেশাল এয়ার সার্ভিস রেজিমেন্ট (আর্টিস্টস রাইফেলস) নামে। নিয়মিত বাহিনীর অংশ হিসাবে ১৯৮০ সালের ইরানি দূতাবাসের অবরোধের সকল বন্দীদের উদ্ধারের টেলিভিশন সম্প্রচরের পর ২২তম স্পেশাল এয়ার সার্ভিস রেজিমেন্ট বিশ্বব্যাপী খ্যাতি এবং স্বীকৃতি লাভ করে।

Other Languages