জর্জ ওয়ালেস (চলচ্চিত্র)

জর্জ ওয়ালেস
জর্জ ওয়ালেস (চলচ্চিত্র) ডিভিডি প্রচ্ছদ.jpg
পরিচালকজন ফ্রাঙ্কেনহাইমার
প্রযোজকজন ফ্রাঙ্কেনহাইমার
জুলিয়ান ক্রেইনিন
রচয়িতাপল মোনাশ এবং
মার্শাল ফ্রেডি
(চলচ্চিত্ররূপ)
মার্শাল ফ্রেডি (বই)
শ্রেষ্ঠাংশেগ্যারি সিনাইস
মারে উইনিংহ্যাম
অ্যাঞ্জেলিনা জোলি
সুরকারগ্যারি চ্যাং
চিত্রগ্রাহকঅ্যালান কাসো
সম্পাদকঅ্যান্টনি গিব্‌স
পরিবেশকটার্নার নেটওয়ার্ক টেলিভিশন
মুক্তি২৫ আগস্ট, ১৯৯৭
দৈর্ঘ্য১৭৮ মিনিট
ভাষাইংরেজি

জর্জ ওয়ালেস (ইংরেজি: George Wallace) হচ্ছে ১৯৯৭ সালে নির্মিত একটি টেলিচলচ্চিত্র। এটির পরিচালক জন ফ্রাঙ্কেনহাইমার, এবং এতে শ্রেষ্ঠাংশে অভিনয় করেছেন গ্যারি সিনাইস, মারে উইনিংহ্যাম, ও অ্যাঞ্জেলিনা জোলি। এই চলচ্চিত্রটির জন্য পরবর্তী বছর, পরিচালক জন ফ্রাঙ্কেনহাইমার, গ্যারি সিনাইস, মারে উইনিংহ্যাম এমি পুরস্কার লাভ করেন। ১৯৯৬ সালে মার্শাল ফ্রেডি'র রচিত জীবনীমূলক উপন্যাস দ্য ক্লাসিক পোর্ট্রেট অফ আলাবামা গভর্নর জর্জ ওয়ালেস অনুসারে চলচ্চিত্রটি তৈরি। চলচ্চিত্রটির মূল চিত্রনাট্য লেখার সাথেও মার্শাল ফ্রেডি যুক্ত ছিলেন।

সমালোচকদের দ্বারা এই ছবিটি বিশেষভাবে প্রশংসিত হয়। এমি পুরস্কারের সাথে সাথে ছবিটি সেরা মিনি ধারাবাহিক/টেলিচলচ্চিত্র বিভাগে গোল্ডেন গ্লোব পুরস্কারও লাভ করে। অ্যাঞ্জেলিনা জোলিও এ চলচ্চিত্রে জর্জ ওয়ালেসের দ্বিতীয় স্ত্রী'র চরিত্রে অভিনয়ের করে গোল্ডেন গ্লোব পুরস্কার লাভ করেন।

কাহিনী সংক্ষেপ

জর্জ ওয়ালেস-এর কাহিনী একজন বিতর্কিত রাজনীতিকের জীবনকে ঘিরে আবর্তিত হয়েছে, যিনি ১৯৫০-এর দশকে আলাবামা'র বারবারা কাউন্টির একজন সার্কিট আদালতের বিচারক হিসেবে তাঁর পেশাজীবন শুরু করেন, এবং পরবর্তীতে ধাপে ধাপে আলাবামা'র ইতিহাসে সবচেয়ে ক্ষমতাশালী গভর্নররূপে আবির্ভূত হন। চলচ্চিত্রে তাঁর প্রতিকৃতির ফুটিয়ে তুলতে বর্ণবাদের পক্ষে সেই সময়ে তাঁর জনপ্রিয় দৃষ্টিভঙ্গিকে ফুটিয়ে তোলা হয়েছে। এই ছবিতে আরো যা বিধৃত হয়েছে তাঁর মধ্যে আছে রাষ্ট্রপতি হিসেবে তাঁর নির্বাচিত হওয়ার আকাঙ্ক্ষা, শক্তিশালী প্রতিদ্বন্দীরূপে নিজেকে তৈরি করা, ও গুপ্তহামলায় আক্রান্ত হবার পূর্বে বেশ কয়েকটি অঙ্গরাজ্যে তাঁর জয়লাভ। এছাড়া কালো শিক্ষার্থীদেরকে ইউনিভার্সিটি অফ আলাবামায় যেনো ভর্তি হতে না পারে সেজন্য তাঁর বাধাদানমূলক ‘বিদ্যালয়ের দোরেই ঠেকিয়ে দিলাম’ (‘in the schoolhouse door’) ধরনের প্রতিকী মনোভাবও উপস্থাপিত হয়েছে।