আ সং অব আইস অ্যান্ড ফায়ার

আ সং অব আইস অ্যান্ড ফায়ার
লেখকজর্জ আর. আর. মার্টিন
মূল শিরোনামA Song of Ice and Fire
দেশমার্কিন যুক্তরাষ্ট্র
ভাষাইংরেজি
বর্গমহাকাব্যিক ফ্যান্টাসি[১]
প্রকাশক
  • ব্যান্টাম বুকস (যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা)
  • ভয়েজার বুকস (যুক্তরাজ্য, অস্ট্রেলিয়া)
প্রকাশকালআগস্ট ১৯৯৬–বর্তমান
মিডিয়া ধরনমুদ্রণ (হার্ডব্যাক ও পেপারব্যাক)
অডিওবই

আ সং অব আইস অ্যান্ড ফায়ার (ইংরেজি: A Song of Ice and Fire; বাংলা অনুবাদ: বরফ ও আগুনের গান) হল মার্কিন ঔপন্যাসিক জর্জ আর. আর. মার্টিন রচিত মহাকাব্যিক ফ্যান্টাসি ধারাবাহিক উপন্যাস। তিনি এই ধারাবাহিকের প্রথম খণ্ড আ গেম অব থ্রোনস লেখা শুরু করেন ১৯৯১ সালে এবং তা প্রকাশিত হয় ১৯৯৬ সালের আগস্ট মাসে। মার্টিন শুরুতে এই ধারাবাহিকের ত্রয়ী উপন্যাস রচনার পরিকল্পনা করেন, বর্তমানে পরিকল্পিত সাতটি খণ্ডের পাঁচটি খণ্ড প্রকাশিত হয়েছে। পঞ্চম এবং সর্বশেষ প্রকাশিত খণ্ডটি হল আ ড্যান্স উইথ ড্রাগন্‌স, যা ২০১১ সালে প্রকাশিত হয়। মার্টিন বর্তমানে ষষ্ঠ উপন্যাস দ্য উইন্ড্‌স অব উইন্টার রচনা করছেন।

আ সং অব আইস অ্যান্ড ফায়ার কাল্পনিক মহাদেশ ওয়েস্টেরস ও এসোসের পটভূমিতে রচিত। তিনটি মূল গল্পে দেখা যায় কয়েকটি পরিবার ওয়েস্টেরসের উপর নিজেদের নিয়ন্ত্রণের জন্য যুদ্ধে লিপ্ত এবং মূল রাজবংশের বধকৃত রাজার কন্যা ডিনেরিস টার্গেরিয়ান আয়রন থ্রোন পুনরুদ্ধার করতে আশাবাদী।

মার্টিনের এই বই লেখার অনুপ্রেরণা হল ওয়ার্স অব দ্য রোজেস এবং মরিস দ্রুন রচিত ফরাসি ঐতিহাসিক উপন্যাস দি অ্যাকার্সড কিংস[২][৩] আ সং অব আইস অ্যান্ড ফায়ার বইটি এতে প্রদর্শিত নারী ও ধর্ম এবং এর পাশাপাশি বাস্তবতার জন্য প্রশংসিত হয়। পাশাপাশি এর নৈতিকভাবে দ্ব্যর্থবোধক সমাজ ব্যবস্থা, যেমন - বিশ্বস্ততা, অহংকার, মানব যৌনতা, ধর্মভীরুতা এবং নৈতিকতা, এই বিষয়সমূহ প্রশ্নবিদ্ধ।

গল্প সংক্ষেপ

আ সং অব আইস অ্যান্ড ফায়ার হল একটি কাল্পনিক পৃথিবীর গল্প যেখানে একটি ঋতু কয়েক বছর ধরে চলে এবং হঠাৎ করে শেষ হয়। প্রথম উপন্যাসের ঘটনাবলী শুরুর প্রায় তিন শতাব্দী পূর্বে ওয়েস্টেরসের সাত রাজ্য টার্গেরিয়ান রাজবংশের প্রথম এগন এবং তার বোন ভিসেনিয়া এবং রেনিসের অধীনে ঐক্যবদ্ধ হয়েছিল। আ গেম অব থ্রোনস উপন্যাসের শুরুতে দেখা যায় রবার্ট ব্যারাথিয়নের নেতৃত্বে টার্গেরিয়ান রাজবংশের শেষ রাজা দ্বিতীয় এরিস টার্গেরিয়ানের বিরুদ্ধে বিদ্রোহ ঘোষণা করে, তাকে দোষী সাব্যস্ত করে ও তাকে হত্যা করে নিজেকে রাজা ঘোষণার ১৫ বছর পেরিয়ে গেছে, এবং নয় বছরের দীর্ঘ গ্রীষ্ম প্রায় শেষ হয়ে আসছে।

মূল গল্প শুরু হয় আ গেম অব থ্রোনস এ রাজা রবার্টের মৃত্যুর পর অভিজাত পরিবারের মধ্যে ক্ষমতা দখলের দ্বন্দ্ব নিয়ে। রবার্টের উত্তরাধিকারী ১৩ বছর বয়স্ক জফ্রি ব্যারাথিয়ন তার মা রাণী সার্সির চালিকায় রাজা ঘোষিত হয়। যখন রাজার উপদেষ্টা এডার্ড "নেড" স্টার্ক জানতে পারে যে জফ্রি এবং তার অন্য ভাইবোনেরা সার্সি ও তার জমজ ভাই জেমি "দ্য কিংস্লেয়ার" ল্যানিস্টারের অজাচারের ফসল, এডার্ডকে রাজদ্রোহের অপরাধে হত্যা করা হয়। জবাবে রবার্টের ভাই স্ট্যানিস ও রেনলি ব্যারাথিয়ন দুজনে সিংহাসনের দাবী করে। এই সময়ে ওয়েস্টেরসের সাত রাজ্যের দুটি রাজ্য আয়রন থ্রোন থেকে স্বাধীনতার ঘোষণা দেয়। এডার্ড স্টার্কের বড় পুত্র রব স্টার্ক নিজেকে উত্তরের রাজা ঘোষণা করে এবং ব্যালন গ্রেজয়ও আয়রন আইল্যান্ডে সার্বভৌমত্ব লাভের আশা ব্যক্ত করে। দ্বিতীয় বই আ ক্ল্যাশ অব কিংস এ পাঁচ রাজার যুদ্ধ শুরু হয়।

Other Languages
беларуская: Песня Лёду і Агню
беларуская (тарашкевіца)‎: Сьпеў лёду і агню
français: Le Trône de fer
Bahasa Indonesia: A Song of Ice and Fire
日本語: 氷と炎の歌
Кыргызча: Муз жана от ыры
srpskohrvatski / српскохрватски: A Song of Ice and Fire
Simple English: A Song of Ice and Fire
slovenščina: Pesem ledu in ognja
српски / srpski: Песма леда и ватре
Tiếng Việt: A Song of Ice and Fire
Bân-lâm-gú: A Song of Ice and Fire